ঈদে খাবার পাবে সুবিধাবঞ্চিত ৩১ হাজার মানুষ

ঈদুল আজহায় সুবিধাবঞ্চিত ৩১ হাজারের বেশি মানুষকে খাবার দেওয়া হবে। গ্রামীণফোন ও বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ‘গ্রামীণফোন ঈদের খুশি’র মাধ্যমে মানুষের মুখে হাসি ফোটাতে এমন আয়োজন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে দুটি প্রতিষ্ঠান গত ২৮ জুলাই একটি চুক্তি স্বাক্ষর করে।
ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন গ্রামীণফোনের প্রধান মানবসম্পদ কর্মকর্তা সৈয়দ তানভীর হুসাইন, বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা কিশোর দাস। এ ছাড়া গ্রামীণফোন এমপ্লয়িজ ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট ফজলুল হক, হেড অব কমিউনিকেশন খায়রুল বাশার ও লিড স্পেশ্যালিস্ট সাসটেইন্যাবিলিট হাফিজুর রহমান খান।

জানা যায়, ঈদের খুশি ছড়িয়ে দিতে গ্রামীণফোনের এমপ্লয়িরা বিদ্যানন্দকে ৪৬ লাখ ২০ হাজার ৮৫৬ টাকা দিয়েছে। এ উদ্যোগের মাধ্যমে ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, কুড়িগ্রাম, নারায়ণগঞ্জ, রংপুর, কক্সবাজার ও খাগড়াছড়ির ৩১ হাজারেরও বেশি মানুষের মাঝে ঈদের বিশেষ খাবার সরবরাহ করা হবে। পুরো বিষয়টির তত্ত্বাবধানে থাকবে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন। খাবার সরবরাহ প্রক্রিয়া শুরু হবে ঈদের দিন। চলতে পারে ৩ আগস্ট পর্যন্ত।

বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা কিশোর দাস বলেন, ‘আয় কমে যাওয়া, চাকরি হারানো, দোকান ও ব্যবসায়িক কার্যক্রম বন্ধ থাকা এবং আয়ের পথ পুরোপুরি বন্ধ হওয়াসহ নানাভাবে কোভিড-১৯ দেশের অধিকাংশ মানুষের মারাত্মক ক্ষতি করেছে। এ সঙ্কটকালে মানুষকে সহায়তা ও তাদের মাঝে আনন্দ ছড়িয়ে দিতে গ্রামীণফোনের সাথে এ উদ্যোগে যুক্ত হতে পেরে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত।’

গ্রামীণফোনের প্রধান মানবসম্পদ কর্মকর্তা সৈয়দ তানভীর হুসাইন বলেন, ‘ঈদের তাৎপর্য হলো ত্যাগের মহিমা নিয়ে সবার মাঝে আনন্দ ছড়িয়ে দেওয়া। দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের মাঝে ঈদের আনন্দ ছড়িয়ে দিতে গ্রামীণফোন পরিবারের সবাই স্বতঃস্ফূর্তভাবে এ উদ্যোগের সাথে যুক্ত হয়েছে; বিষয়টি অত্যন্ত আনন্দের।’
সূত্র: jagonews24.com/feature

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *