জুলাই মাসে দরিদ্রদের বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষা

ডেস্ক নিউজ : দেশের দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে বিনামূল্যে করোনার নমুনা পরীক্ষা করার নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

বৃহস্পতিবার (১ জুলাই) স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব ডা. বিলকিস বেগমের সই করা অফিস আদেশে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়।

নির্দেশনায় বলা হয়, সারাদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় এর শনাক্ত করার পরীক্ষার প্রয়োজনীয়তা দেখা দিয়েছে।

ফি প্রদান করে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর একই পরিবারের একাধিক সদস্যদের করোনা পরীক্ষা কষ্টকর হয়ে যাচ্ছে।

এমতাবস্থায় করোনা প্রতিরোধ ও মোকাবিলায় দেশের দরিদ্র জনগণের করোনার নমুনা পরীক্ষা শুধু জুলাই মাসের জন্য বিনামূল্যে করার বিষয়ে সব সরকারি স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়া হলো।

প্রসঙ্গত, দেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের পর গত বছরের মার্চ থেকে বিনামূল্যে নমুনা পরীক্ষা করে আসছিল সরকার।

এরপর গত বছরের ২৯ জুন নমুনা পরীক্ষার ফি নির্ধারণ করা হয়।

সে অনুযায়ী, হাসপাতাল বা নির্ধারিত বুথে গিয়ে নমুনা পরীক্ষা করালে ২০০ টাকা এবং বাড়ি থেকে নমুনা নিয়ে এলে ৫০০ টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়।

এরপর গত ১৯ আগস্ট মাসে সরকারিভাবে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষায় ফি ২০০ টাকার পরিবর্তে ১০০ টাকা এবং বাড়িতে গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করলে পরীক্ষার ফি ৫০০ টাকার পরিবর্তে ৩০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়।

যদিও সরকারিভাবে নমুনা পরীক্ষা বিনামূল্যে করার জন্য একাধিকবার এর আগে সুপারিশ জানিয়ে এসেছে কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি।

চলতি বছরের ১৮ জানুয়ারি কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ শহিদুল্লাহর স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘কোভিড-১৯-এর সংক্রমণ হারে নিম্নগতি দেখা যাচ্ছে; এ অবস্থায় নমুনা পরীক্ষার হার প্রয়োজন।

বিশেষ করে লক্ষণবিহীন সংক্রমণ নির্ণয়ের জন্য সংক্রমণ ঝুঁকিতে থাকা জনগোষ্ঠীকে পরীক্ষার আওতায় আনা দরকার।

কেন্দ্রে এসে পরীক্ষার জন্য বর্তমানে ১০০ টাকা ফি নেওয়া হয়, এটি বিনামূল্যে করার সুপারিশ করছি।’ সম্পাদনা – অলক কুমার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *