হত্যা ও অস্ত্র মামলার আসামী “কোয়াটার রনি” ঢাকা থেকে গ্রেপ্তার

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের আতংক একাধিক খুন ও অস্ত্র মামলার চিহ্নিত সন্ত্রাসী আতিকুর রহমান রনি ওরফে কোয়াটার রনিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

তার বিরুদ্ধে টাঙ্গাইল সদর থানা সহ বিভিন্ন থানায় খুন, অস্ত্র ও ছিনতাইসহ ৯টি মামলা রয়েছে।

রনি টাঙ্গাইল শহরের দেওলা এলাকার বেলায়েত হোসেনের ছেলে।

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) টাঙ্গাইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মীর মোশারফ হোসেনের নেতৃত্বে ঢাকার মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এঘটনায় রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিং করেন পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ২০১২ সালে কোয়াটার রনি ও তার সহযোগীরা টাঙ্গাইলের পিচুরিয়া এলাকা থেকে শামীম ও মামুন নামের দুইজনকে অপহরণের পর খুন করে লাশ গুম করার ঘটনায় সদর থানায় একটি মামলা দায়ের হয়। সেই মামলায় রনির বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি হয়।

কোয়াটার রনির বিরুদ্ধে দুইটি খুন, ৪টি অস্ত্র মামলাসহ আরো তিনটি মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। এছাড়াও সে সদর থানায় দায়ের হওয়া ছিনতাই মামলার আসামী।

এবিষয়ে জেলা পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় জানান, কোয়াটার রনির বিরুদ্ধে খুন ও অস্ত্র মামলাসহ ৯টি মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

এরমধ্যে একটি মামলায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা ছিল। একজন সংসদ সদস্য তার নামটা বলেছিলেন।

সে পুলিশের খাতায় একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী। শনিবার তাকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সম্প্রতি তার বিরুদ্ধে টাঙ্গাইল সদর থানায় একটি ছিনতাই মামলা রয়েছে; সেই মামলাতে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন চেয়ে তাকে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানো হয়েছে।

এসময় তিনি জানান, টাঙ্গাইলে সন্ত্রাসীদের অভয়ারন্য হতে দেয়া হবে না। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ অব্যাহত থাকবে।

তিনি আরো জানান, জেলার বাকি সকল সন্ত্রাসীদের ধরতে অভিযান চলমান রয়েছে। সম্পাদনা – অলক কুমার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *