টাঙ্গাইলে হাম-রুবেলা টিকা দেওয়ার পর এক শিশুর মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলায় হাম রুবেলা টিকা দেওয়ার পর পিয়া (১০) নামে এক শিশুর মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার সকালে গানজানা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত পিয়া উপজেলার দেওপাড়া ইউনিয়নের গানজানা গ্রামের বাহাজ উদ্দিনের মেয়ে।

নিহত পিয়ার ভাই ফরমান জানান, তার বোনের বয়স ১০ বছর ৫ মাস। কাউকে না জানিয়ে অন্য শিশুদের সঙ্গে গানজানা সূর্যের হাসি ক্লিনিকে টিকা দিতে যায়।

টিকা দিয়ে ফেরার পথে মাথা ঘুরে রাস্তায় পড়ে যায়। পরে অসুস্থ অবস্থায় সাথীদের নিয়ে সে বাড়ি আসে।

বাড়িতে এসে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ধলাপাড়া ‘সিকদার মেডিক্যাল হল’ ফার্মেসিতে নিয়ে যান তার পরিবার।

সেখানে সৈকত নামে এক স্বাস্থ্য সহকারী রোগী দেখে একটি ইনজেকশন দেন; এরপর অবস্থার আরো অবনতি হয়। ঘাটাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

ফার্মেসিতে কর্র্মরত স্বাস্থ্য সহকারী সৈকত জানান, রোগীর অবস্থা অনেক খারাপ ছিল। তাই ডেক্সামেটাসন ইনজেকশন পুস করা হয়।

এটা অন্য যে কোনো ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ঠেকাতে দেওয়া হয়। আর ওই মেয়েটার আগে থেকেই শ্বাসকষ্ট ছিল, আমিই চিকিৎসা করেতেছিলাম।

ওই এলাকার টিকা কার্যক্রম মনিটরিংয়ের দায়িত্বে থাকা ঘাটাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ফিল্ড সুপারভাইজার মনোয়ারা সুলতানা জানান, টিকা দেওয়ার পর শিশুটি সুস্থ স্বাভাবিক ছিল।

কি বলছেন ডাক্তার ও সংশ্লিষ্টরা – 

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সাইফুর রহমান খান জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই শিশুটির মৃত্যু হয়।

শিশুটির অভিভাবকদের সাথে কথা বলে জানা যায় সে শ্বাসকষ্ট রোগে আক্রান্ত ছিল।তবে তদন্ত করার পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

ঘাটাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্র্তা ইউএনও অঞ্জন কুমার সরকার জানান, এটি দুঃখজনক ঘটনা। দাফন জন্য সরকারের পক্ষ থেকে নিহতের পরিবারকে ২০ হাজার টাকা প্রদান করা হয়েছে।

টাঙ্গাইল সিভিল সার্জন ডা. ওয়াহেদুজ্জামান জানান, হাম-রুবেলা ভ্যাকসিনে কিছু কিছু ক্ষেত্রে সীমাবদ্ধতা আছে; পিয়া যে হাঁপানি রোগী ছিল তা জানা ছিলনা।

ঘটনার পরে বিশ্ব স্বাস্থ্যসংস্থার প্রতিনিধিসহ সাত সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে; ভ্যাকসিনে কোনো সমস্যা আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হবে।

উল্লেখ্য, বিশ্ব স্বাস্থ্যসংস্থা থেকে প্রাপ্ত হাম-রুবেলা টিকার ক্যাম্পেইন গত ১৬ ডিসেম্বর থেকে শুরু হয়ে ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত চলবে। নয় মাস বয়স থেকে দশ বছরের শিশুদের এ টিকা দেওয়া হবে। সম্পাদনা – অলক কুমার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *