টাঙ্গাইল কেন্দ্রীয় ঈদগাঁ থেকে অবৈধ দোকান উচ্ছেদ

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইল কেন্দ্রীয় ঈদগাঁয়ে অবৈধভাবে গড়ে উঠা ১৬টি দোকান উচ্ছেদ করা হয়েছে।

বুধবার (২৪ ফেব্রয়ারী) বিকালে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. খায়রুল ইসলাম ওই উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন।

সদর উপজেলা ভূমি অফিসের তথ্য মতে, ১৯০৫ সালে স্থাপিত টাঙ্গাইল কেন্দ্রীয় ঈদগাঁয়ের আয়তন প্রায় ৬ একর।

দীর্ঘদিন ধরে বেশ কয়েকজন চায়ের দোকান, ফাষ্ট ফুড, হারবাল সরবত সহ বিভিন্ন ধরনের দোকান খুলে ব্যবসা করে আসছিলেন।

উপজেলা ভূমি অফিস থেতে বেশ কয়েকবার নোটিস দেওয়ার পরও এই সব দখলদার অবৈধ দোকানগুলো সরিয়ে নেয়নি।

গত ১৮ ফেব্রয়ারী (বৃহস্পতিবার) তাদেরকে চুড়ান্ত নোটিশ দেওয়া হয়। অবৈধ দোকানদারগণ নোটিশটি আমলে না নেওয়ায়, এই উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

ঈদগাঁ থেকে উচ্ছেদ হওয়া চা দোকানি দিনেশ চৌহান বলেন, যারা ঈদগাঁয়ে দোকান করে তারা প্রায় সবাই গরীব ও হত-দরিদ্র।

বিকল্প কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা না করে দোকান উচ্ছেদ করাতে পরিবার-পরিজন নিয়ে বিপদে পড়তে হবে।

তিনি বলেন, আশা করি সরকার আমাদের অন্য কোথাও দোকান করার জায়গা করে দেবেন।

এ প্রসঙ্গে টাঙ্গাইল সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ খায়রুল ইসলাম বলেন, সরকারী জমি উদ্ধারের নিয়মিত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে এই উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করা হয়।

ঈদগাঁ থেকে অবৈধ দোকান উচ্ছেদ করে, শিশু-কিশোরদের খেলা-ধূলার জন্য মাঠটি উন্মুক্ত করা হলো।

ঈদগাঁয়ের দক্ষিণ পাশে সীমানা প্রাচীরের কাছে যে অবৈধ বাঁশের বাজার গড়ে উঠেছে; সেগুলো উচ্ছেদের মৌখিক নোটিশ দেওয়া হলো। আগামী সপ্তাহে বাঁশ বাজারে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হবে।

এই উচ্ছেদ অভিযানে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যসহ উপজেলা ভূমি অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন। সম্পাদনা – অলক কুমার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *