পাখির প্রতি ভালোবাসা ভোক্তা অধিকার কর্মকর্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইল শিকারীর হাত থেকে উদ্ধার করে ৩টি পানকৌড়ির ছানা উদ্ধার করে জলাশয়ে অবমুক্ত করেছেন টাঙ্গাইলের ভোক্তা অধিকার কর্মকর্তারা।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের এক স্ট্যাটাস থেকে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

সূত্র জানায়, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ টাঙ্গাইলের সহকারী পরিচালক ইফতেখারুল আলম রিজভী সহ দেলদুয়ার উপজেলার বাজার তদারকি শেষে ফেরার পথে পাখির বাচ্চা ৩টি উদ্ধার করেন।

সূত্র আরো জানায়, তদারকি শেষে টাঙ্গাইল কার্যালয়ে ফেরার সময় পথিমধ্যে এক পাখি শিকারীর হাতে ৩টি পানকৌড়ির বাচ্চা খাচাবন্দী অবস্থায় দেখতে পান তারা।

সেসময় গাড়ি থামিয়ে শিকারীর কাছ থেকে পানকৌড়ি ৩টি বাচ্চা উদ্ধার করেন।

এসময় শিকারীকে পাখি শিকার না করতে সতর্ক করে ছেড়ে দেন।

পরে এই কর্মকর্তা জানান, উদ্ধারকৃত পানকৌড়ির বাচ্চা ৩টি টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসনের তত্ত্ববধানে থাকা ডিসি লেক এনে স্থানীয় ব্যবসায়ী, সিকিউরিটি গার্ডগণের উপস্থিতিতে অবমুক্ত করি।

তিনি ওই স্ট্যাটাসে আরো বলেন, আমাদের দেশের এক অতি পরিচিত পাখি পানকৌড়ি।

পানকৌড়ি পাখির মজার ১টা বৈশিষ্ট্য হলো এরা বেশির ভাগ সময়ে ডানা মেলে ঠায় বসে থাকে!!

আমাদের সাহিত্যে, শিল্পে, সংস্কৃতিতে এই পাখির ব্যাপক উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়।

তবে হতাশার কথা হচ্ছে, কালের বিবর্তনে, প্রকৃতির বিরূপ আচরণে, আর মানুষের অত্যাচারে ও লোভে পাখিটি এখন বিরল প্রায়।

সবশেষে তিনি সকলকে দেশী/বিদেশী/পরিযায়ী পাখি শিকার হতে বিরত থাকার অনুরোধ জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *