শপথ পাঠ করলেন মির্জাপুর পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র শিমুল

মির্জাপুর প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের মির্জাপুর পৌরসভার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নবনির্বাচিত মেয়র শপথ বাক্য পাঠ করেছেন।

বৃহস্পতিবার (০১ অক্টোবর) বেলা বারোটার দিকে ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার মো. মোস্তাফিজুর রহমান নবনির্বাচিত মেয়র সালমা আক্তার শিমুলের শপথ বাক্য পাঠ করান।

ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার এর সম্মেলন কক্ষে এই শপথ বাক্য পাঠ অনুষ্ঠিত হয়।

পরে প্রয়াত মেয়র সাহাদৎ হোসেন সুমনের সহধর্মিনী মির্জাপুর পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র সালমা আক্তার শিমুল সচিবালয়ে কৃষিমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য স্বাক্ষাত করেন।

সেখানে উপস্থিত ছিলেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি একাব্বর হোসেন এমপি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক তাহরীম হোসেন সীমন্ত।

এ সময় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসেডিয়াম সদস্য কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, প্রয়াত মেয়র সাহাদৎ হোসেন সুমন অত্যন্ত জনপ্রিয় ছিলেন।

তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগকে শক্তিশালী করতে এবং মির্জাপুর পৌরসভাকে আধুনিক পৌরসভায় রুপ দিতে নিরলসভাবে কাজ করে গেছেন।

সুমনের স্বপ্ন বাস্তবায়নে নবনির্বাচিত মেয়রকে কাজ করতে হবে। এজন্য যে কোন ধরণের সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন মন্ত্রী।

মন্ত্রী আরো বলেন, একাব্বর হোসেন এমপি’র নেতৃত্বে মির্জাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ সু-সংগঠিত ও শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে।

তিনি নবনির্বাচিত মেয়রকে এমপি’র পরামর্শ নিয়ে পৌরসভার উন্নয়ন ও জনগণের কল্যাণে রাজনীতি করার পরামর্শ দেন।

শপথ অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত সচিব এম ইদ্রিস সিদ্দিকী, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) মো. হেলাল মাহমুদ শরীফ, মির্জাপুর উপজেলার সাবেক নির্বাহী কর্মকর্তা উপ-সচিব মো. মাসুম আহমেদ, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের ঢাকা বিভাগের উপপরিচালক (উপ-সচিব) হাছিনা বেগম, বাংলাদেশ জাতীয় পল্লী উন্নয়ন সমবায় ফেডারেশনের সভাপতি খন্দকার বিপ্লব মাহমুদ উজ্জল, মির্জাপুর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক শামীম আল মামুন, যুগ্ম-আহবায়ক আবিদ হোসেন শান্ত।

সেখানে আরো উপস্থিত ছিলেন, মির্জাপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সিয়াম, মির্জাপুর পৌরসভার কাউন্সিলর ও কর্মকর্তাবৃন্দ।

গত ১১ ফেব্রুয়ারী মির্জাপুর পৌরসভার মেয়র মো. সাহাদৎ হোসেন ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

তার মৃত্যুতে ১ মার্চ মেয়র পদটি শুন্য ঘোষনা করে স্থানীয় সরকার বিভাগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *