টাঙ্গাইলে সন্ত্রাসী হামলায় চিরতরে পঙ্গু হলো শ্রমিক লীগ নেতা

নিজস্ব প্রতিবেদক : টাঙ্গাইল সন্ত্রাসী হামলায় চিরতরে পঙ্গু হলো জেলা শ্রমিক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল ইসলাম ওরফে রেজা (৩৮)।

এই হামলায় সন্ত্রাসীরা ধারালো দেশিয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে দুই হাত ও  বাম পা শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলেছে।

রোববার (২১ নভেম্বর) আনুমানিক রাত আটটার দিকে শহরের নতুন বাস টার্মিনাল এলাকায় রেজাউল ইসলামের ওপর একদল সন্ত্রাসী হামলা করে।

তাকে বর্তমানে সাভারের এনাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে।

রেজাউল শহরের দেওলা এলাকার মো. আজাদ আলমগীরের ছেলে। তিনি শ্রমিক লীগের রাজনীতিতে আসার আগে জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ছিলেন।

রেজাউলের বন্ধু সেলিম সিকদার জানান, প্রথমে তাঁকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।

সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর উন্নত চিকিৎসার জন্য সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

গতকাল রাতেই রেজাউলকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে। বর্তমানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক।

রেজার বড় ভাই রাশেদুল ইসলাম দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এলাকার কিছু দলীয় প্রতিপক্ষ রেজার ওপর এ হামলা চালিয়েছে। তারা আমার ভাইকে হত্যা করতে চেয়েছিল।’

এই ঘটনায ক্ষোভ প্রকাশ করে টাঙ্গাইল জেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুল লতিফ জানান, অপরাধীদের আইনের আওতায় আনার জন্য আমরা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

টাঙ্গাইল সদর পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক আরিফ ফয়সাল জানান, হামলাকারীরা রেজাউলের হাত, পা, মেরুদণ্ডসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছে।

এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি। মামলা হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ সম্পাদনা – অলক কুমার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *