সব মানুষের মানুষ শ্যামবাবুর ১০তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

ইভান, ভূঞাপুর : আজ ১৩ অক্টোবর। টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার ফলদা ইউনিয়নের ‘ফলদার প্রাণপুরুষ শ্যামবাবু’ নামে খ্যাত প্রয়াত শ্যাম শংকর দত্তের ১০তম মৃত্যুবার্ষিকী।

তিনি ভূঞাপুর উপজেলার ফলদা ইউনিয়নের প্রাক্তন চেয়ারম্যান, বিশিষ্ট সমাজসেবক, শিক্ষানুরাগী ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ছিলেন।

শ্যাম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দিনব্যাপী আলোচনা সভা, মন্দিরে তাঁর বিদেহী আত্মার শান্তি প্রার্থনার আয়োজন করা হয়েছে।

প্রয়াত শ্যামবাবু গোপালপুর প্রেসক্লাবের সম্পাদক, দৈনিক সংবাদ, দৈনিক ভোরের কাগজ, সাপ্তাহিক পূর্বাকাশের প্রতিনিধি ও ফলদা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সন্তোষ কুমার দত্তের পিতা।

বর্ণাঢ্য জীবনের অধিকারী “শ্যামবাবু” ছিলেন অসাম্প্রদায়িক, প্রগতিশীল চিন্তার ধারক।

প্রয়াত বাবু শ্যাম শংকর দত্ত দুই মেয়াদে ফলদা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও তিন মেয়াদে ইউপি সদস্য ছিলেন।

ফলদার উন্নয়নের রূপকার শ্যাম শংকর দত্তের প্রত্যক্ষ ও ঐকান্তিক সহযোগিতায় ফলদায় সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে।

তিনি ফলদা আশরাফুল উলুম নেজামিয়া মাদরাসা ও মসজিদের জন্য প্রায় দুই কোটি টাকার জমি দান করে করেছেন।

যার কারণে অত্র এলাকার হিন্দু মুসলমানদের সম্প্রীতি ব্যাপক সুদৃঢ় হয়েছে।

তাঁর নেতৃত্বে প্রায় এক যুগ সময়কাল হাজার হাজার চক্ষু রোগী বিনামূল্যে অপারেশন ও চক্ষু সেবা পেয়েছেন।

এছাড়াও ১৯৯৬ সালের প্রলয়ঙ্কারী ঘূর্ণিঝড়ের সময়ে গোপালপুর অঞ্চলে তিনি সার্বিক ত্রাণ বিতরণের ব্যবস্থা করেছিলেন।

মহান মুক্তিযুদ্ধে তিনি প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে মুক্তিযুদ্ধের সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন।

স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে লঙ্গরখানা খুলে দরিদ্র জনসাধারণের জন্য খাদ্যের ব্যবস্থা করেছিলেন।

শ্যামবাবুর ১০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে পুষ্পস্তবক অর্পন, গীতা পাঠ, ধর্মীয় কীর্তন, আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানাদি অনুষ্ঠিনের আয়োজন করা হয়েছে হবে বলে পরিবারিক সূত্রে গেছে।

প্রয়াত শ্যাম শংকর দত্তের পরিবার তাঁর আত্মার শান্তি কামনায় সকলের আশির্বাদ চেয়েছেন। সম্পাদনা – অলক কুমার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *