শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার স্থানান্তরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ

ঘাটাইলে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশ

ঘাটাইল প্রতিনিধি : শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার ঘাটাইল থেকে মধুপুর স্থানান্তরের প্রতিবাদে টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ধারাবাহিক কর্মসূচির অংশ হিসাবে বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) সকালে উপজেলা সদরে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

আরো পড়ুন – প্রস্তাবিত আইটি পার্ক ঘাটাইলেই বাস্তবায়নের দাবিতে হাজারো মানুষ রাস্তায়

আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার রক্ষা কমিটি এই কর্মসূচির আয়োজন করে।

বিক্ষোভ মিছিলটি উপজেলা সদরের বিভিন্ন শহর প্রদক্ষিণ করে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সামনে গিয়ে শেষ হয়; পরে সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশ শেষে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্বারকলিপি প্রদান করেন।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহিনা সুলতানা শিল্পী, শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টার রক্ষা কমিটির সদস্য সচিব সাংবাদিক আতিকুর রহমান।

আরো পড়ুন – সোহেল হাজারী কোন অথরিটিতে এমপি? জানতে চান হাইকোর্ট

আনেহলা ইউপি চেয়ারম্যান তালুকদার শাহজাহান, দিগড় ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ মামুন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার তোফাজ্জল হোসেন, সরকারি জিবিজি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মতিয়ার রহমান, সাবেক ভিপি আবু সাইদ রুবেল, মুক্তিযোদ্ধা এমদাদুল হক খান হুমায়ুন, অধ্যাপক মতিউর রহমান প্রমুখ।

জমি বিক্রয় নোটিশ

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি হাই-টেক পার্কের অনুকূলে ১২ একর ৭৭ শতাংশ জমি বিনামূল্যে বরাদ্দ প্রদানের জন্য ঘাটাইল উপজেলা প্রশাসনকে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে চিঠি দেয় ডাক ও টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রনালয়।

২০১৮ সালের ৩ নভেম্বর মেলে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং এন্ড ইনকিউবেশন সেন্টারের প্রশাসনিক অনুমোদন।

পরে ১ লাখ এক হাজার টাকা নামমাত্র মূলো উপজেলার সন্ধানপুর ইউনিয়নের গৌরীশ্বর মৌজায় ১২.৭৭ একর খাস জমির দলিল সম্পাদন করা হয়।

আরো পড়ুন – সোহেল হাজারী কোন অথরিটিতে এমপি? জানতে চান হাইকোর্ট

পরবর্তীতে একনেকের সভায় অর্থ ছাড় দেওয়া হয়েছে পার্শ্ববর্তী মধুপুরের উপজেলার নামে; শুরু থেকেই এর প্রতিবাদ করে আসছে ঘাটাইলবাসী।

প্রতিবাদ জানিয়ে এরই মধ্যে করা হয়েছে সংবাদ সম্মেলন, ১৫ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে করা হয় মানববন্ধন।

সেখানে সকল শ্রেণিপেশার হাজার হাজার মানুষ তাদের প্রাণের দাবীতে মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন।

এছাড়াও আইটি পার্কের নির্ধারিত স্থানে গণসংগীত ও প্রতীকী অনশন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্পাদনা – অলক কুমার