সখিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভিতরে অবৈধ দোকান

নিজস্ব প্রতিবেদক : সখিপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মুল ফটকের ভিতরে হাসপাতালের বিল্ডিং ঘেঁসে অবৈধ ভাবে স্থাপন করা হয়েছে দোকান।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের অনুমোদন ছাড়াই স্থানীয় প্রভাবশালী মহলকে ম্যানেজ করেই অবৈধ দোকানটি গড়ে উঠেছে।

আর এই দোকানে গভীর রাত পর্যন্ত বখাটেদের আড্ডার অভিযোগও পাওয়া গেছে।

সরজমিনে দেখা যায়, মহামারী করোনা ভাইরাসের টিকা নিতে আসা বৃদ্ধ নারী পুরুষ, লম্বা লাইন ধরে দাঁড়িয়ে আছে প্রখর রোদের মধ্য; তাদের বসার কোন সু-ব্যবস্থা নেই।

অথচ টিকা প্রদানের ঘর ঘেঁসে একটি দোকান গড়ে উঠেছে, সরকারী স্থাপনার ভিতরে।

দূর দূরান্ত হতে সেবা নিতে আসা রোগীদের কথা চিন্তা করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এখনো কোন উদ্যোগ নেয়নি দোকান উচ্ছেদের।

সচেতন মহল মনে করেন, এই অবৈধ দোকানটি উচ্ছেদ না হলে প্রভাবশালীদের হস্তক্ষেপে ভবিষ্যতে আরো দোকান গড়ে উঠার সম্ভবনা রয়েছে।

তখন হয়তো হাসপাতালে সেবা নিতে আসা রোগীসহ রোগী ও তাদের স্বজনরা বড় ধরনের সমস্যায় পড়তে পারেন; সেই সাথে হাসপাতালের কর্তৃপক্ষ।

নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক হাসপাতালের এক কর্মকর্তা বলেন, স্থানীয় কিছু সিন্ডিকেট প্রভাব খাঁটিয়ে হাসপাতালের ভিতরে দোকানটি করছে।

আমরা প্রতিবাদ করলে অহেতুক ঝামেলায় পড়তে হয়; তাই চুপ করে থাকি, কিছু করার নেই।

এবিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (টিএইচও) ডা. আব্দুস সোবহান বলেন, এই দোকানটি আমার আগের অফিসারের সময় হয়েছে। কিভাবে হয়েছে আমি জানি না।

এসময় তিনি আরো বলেন, এটা নিয়ে সংবাদ করবেন না, আমি উচ্ছেদের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব। সম্পাদনা – অলক কুমার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *